পিরোজপুর প্রতিনিধি >>
পিরোজপুর সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজের স্নাতক তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী লামিয়া নূর (২২) হত্যার প্রতিবাদে আজ বুধবার সকালে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজের ছাত্রছাত্রী ও এলাকাবাসীর আয়োজনে সকাল ১০ টায় শহরের টাউন ক্লাব রোডে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, এক বছর পূর্বে পিরোজপুর শহরের সিআই পাড়া এলাকার মৎস ব্যবসায়ী আব্দুল কালাম শেখের মেয়ে লামিয়ার নূরের সাথে যশোরের কেশবপুর উপজেলার সন্ন্যাসগাছা গ্রামের মৃত হামিদ সর্দারের ছেলে পুলিশ সদস্য হানজালা হাসান এর সাথে বিয়ে হয়।
বিয়ের কয়েক মাস পর হানজালা তার শ^শুর বাড়ির লোকদের কাছে ৩ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা মূল্যের একটি মোটর সাইকেল দাবি করে। লামিয়র পরিবার হানজালাকে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা মূল্যের একটি মোটর সাইকেল দিতে চাইলেও তাতে সে রাজি হয়নি। এরপর সে বিভিন্ন সময় লামিয়ার উপর শারিরীক নির্যাতন চালায়।
বক্তারা অভিযোগ করেন, শনিবার দুপুরে লামিয়াকে হত্যার পর ঘরের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখে হানজালা। পরবর্তীতে তা আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেয় হানজালা। তাই বক্তারা ওই পুলিশ সদস্যের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে বলেন, দেশের অন্যান্য হত্যা ঘটনার মত লামিয়া হত্যা যেন চাপা পরে না যায়।
মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, পিরোজপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি শফিউল হক মিঠু, পৌর কাউন্সিলর আব্দুস সালাম বাতেন, সাদ্উল্লাহ লিটন, নারী নেতৃ শিরিনা আফরোজ এবং উন্নয়ন কর্মী মাইনুল আহসান মুন্না প্রমুখ।

SIMILAR ARTICLES

মন্তব্য নেই

মন্তব্য করুন